একশ টাকার টকটাইমে ২৭ টাকা কর দিতে হবে

প্রস্তাবিত বাজেটে মোবাইল ফোনে কথা বলার ওপর আরও ৫ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক আরোপ করা হয়েছে।

ফলে আগের চেয়ে মোবাইল ফোনে কথা বলার ক্ষেত্রে গ্রাহকদেরকে আরও ৫ শতাংশ বেশি অর্থ খরচ করতে হবে।

অর্থাৎ আগে ১০০ টাকা ভরে যে যতক্ষণ কথা বলা যেত, নতুন বাজেটের ফলে ততক্ষণ কথা বলতে লাগবে ১০৫ টাকা।

সম্পূরক শুল্কের এই বিধান বাজেট পাশের পর থেকে অর্থাৎ আগামী ১ জুলাই থেকে কার্যকর হবে।

বর্তমানে মোবাইল ফোনে কথা বলার ক্ষেত্রে ১৫ শতাংশ ভ্যাট ও ৫ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক আরোপিত রয়েছে। এর সঙ্গে আরও ২ শতাংশ সারচার্জ আরোপিত রয়েছে। সব মিলে এ খাতে করের হার ২২ শতাংশ।

বর্তমানে ১০০ টাকা মোবাইলে ভরলে কথা বলার সময় এ থেকে ২২ টাকা কর হিসাবে কেটে নেয়া হয়। এই করের সঙ্গে প্রস্তাবিত বাজেটে মোবাইল ফোনে কথা বলার ওপর আরও ৫ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক আরোপ করা হয়েছে।

ফলে এ খাতে সম্পূরক শুল্কের হার বেড়ে ১০ শতাংশে দাড়াচ্ছে। ভ্যাটের হার অপরিবর্তিত রয়েছে। এতে এই খাতে মোট করের হার দাঁড়াবে ২৭ শতাংশ।

অর্থাৎ মোবাইল ফোনে কথা বলার ওপর প্রস্তাবিত কর কাঠামো বহাল থাকলে আগামী ১ জুলাই থেকে কথা বলার খরচ বেড়ে যাবে। তখন প্রতি ১০০ টাকায় ২৭ টাকা কর দিতে হবে। এখন দিতে হয় ২২ টাকা।

Leave a Reply